Breaking News

আটার দাম আকাশ ছোঁয়া ! মাথায় হাত ইমরান খানের! রুটি খেতে না পাওয়ায় আশঙ্কায় পাকিস্তানিরা 

Image
 

নিউজডেস্কঃ ২০ জানুয়ারি : অর্থ ব্যবস্থা নড়বড়ে ,চিন্তায় কপালে হাত ইমরান খানের। তার মধ্যেই ভেঙে পরেছে অর্থনীতির ব্যাবস্থা। আবার জুটেছে নতুন সমস্যা, পাকিস্তানে এখন আটার আকাশছোঁয়া দামে চিন্তিত গোটা পাকিস্তান বাসী। কিছুদিন আগে পর্যন্ত টমাটো পাওয়া নিয়ে দুশ্চিন্তায় ভুগেছেন পাকিস্তানের জনগণ। এবার আলোচনার কেন্দ্রে আটা। পাকিস্তানের সংবাদমাধ্যম জানাচ্ছে, ইমরানের দেশের বেশিরভাগ জায়গায় এক কিলো আটার দাম ৬২ টাকা। গত এক সপ্তাহেই আটার দাম কিলো প্রতি বেড়েছে পাঁচ টাকা। যা খুব চিন্তার বিষয় বলে জানান সেখানকার জনগন।
জানা যাচ্ছে, পাকিস্তানের কোনও কোনও জায়গায় এক কিলো আটা ৭০ টাকাতেও বিক্রি করছেন বিক্রেতারা। মাসখানেক আগেও করাচিতে দশ কিলো আটার দাম ছিল ৪৫০ টাকা। এখন সেখানে দশ কিলো আটার দাম হয়েছে ৬২০ থেকে ৭০০ টাকা। বিক্রেতারা জানাচ্ছেন, গমের দাম আচমকাই লাফিয়ে বেড়েছে। ফলে এমন মূল্যবৃদ্ধি। ফ্লোর মিল অ্যাসোসিয়েশন কিলো প্রতি আটার দাম ছটাকা বাড়়িয়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন। তার পর থেকেই মধ্যবিত্তের নাভিশ্বাস অবস্থা। দাম কবে কমবে সেই ব্য়াপারেও কোনও স্পষ্ট ধারণা পাওয়া যাচ্ছে না।
লাহোরের একটি প্রথম সারির দৈনিকের খবর অনুযায়ী, শনিবার ইমরান খান রাজ্য সরকারকে খাদ্য দ্রব্যের মূল্য বৃদ্ধিতে লাগাম টানার নির্দেশ দিয়েছিলেন। এদিকে রেস্তোরাঁ ও ধাবা মালিকরা সোমবার থেকে আন্দোলনে নামার হুঁশিয়ারি দিয়েছেন। সরকারের কাছে তাঁদের দাবি, পুরনো মূল্যে আটা সরবরাহ করতে হবে। না হলে রুটি ও নান-এর দাম অস্বাভাবিক বাড়িয়ে দিতে বাধ্য হবেন তাঁরা। ইমরানের সরকার অবশ্য বলছে, গমের দাম বাড়ার খবর ভুয়া। সরকারি গুদামে চার মিলিয়ন টন গম মজুত রয়েছে। ফলে এমনভাবে লাফিয়ে দাম বাড়ার কোনও যুক্তি নেই। কিন্তু গোটা বিষয়ে বেশ চিন্তায় রাজনৈতিক মহল।
[2:28 pm, 20/01/2020] Papai Da: 

Share With:


Leave a Comment

  

Other related news