Top Stories
  1. বিয়ে বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে গিয়ে ৭ বছরের বাচ্চাকে ধর্ষণ করার অভিযোগ উঠল এক যুবকের বিরুদ্ধে।
  2. সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হলো ভূমি পেডনেকারের চামড়া পুড়ে যাওয়া ছবি!
  3. সল্টলেকে গভীর রাতে চললো দুষ্কৃতী তান্ডব, ভাঙা হয়েছে পাইপ লাইন!
  4. জ্বরের রোগী বেপাত্তা হাসপাতাল থেকে, ব্যাখ্যা নেই কর্তৃপক্ষ এবং পুলিশের কাছে!
  5. বিজেপি প্রার্থী লকেট চ্যাটার্জির ব্যান্ডেলের বাড়িতে দুষ্কৃতী হামলা!
  6. ভাতারে কবর থেকে এক শিশু কন্যার দেহ উদ্ধার করছে পুলিশ
  7. মাথায় বন্দুক ঠেকিয়ে নববধূকে নিয়ে পালাল প্রেমিক
  8. জন আক্রোশ সভা'য় বক্তব্য রাখতে গিয়ে থাপ্পর  খেলেন  কংগ্রেস নেতা হার্দিক প্যাটেল
  9. ভোটের আগে সন্ত্রাসের বাতাবরণ সৃষ্টি  করছে তৃণমূল অভিযোগ বিজেপির, বিজেপি যুব সভাপতির বাড়িতে বোমাবাজি ।
  10. মঞ্চে বক্তব্য রাখছিলেন কংগ্রেস নেতা হার্দিক প্যাটেল, হঠাৎ সাদা পাজামা পাঞ্জাবি পরিহিত এক ব্যক্তি মঞ্চে উঠে সরাসরি থাপ্পড় মারলেন তাকে
news-details
politics

উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ ৭২ ঘন্টার জন্য এবং বহুজন সমাজ পার্টির  প্রধান কুমারী মায়াবতী ৪৮ ঘন্টার জন্য কোনরকম নির্বাচনী প্রচারে ভাষণ দিতে পারবেন না

 

মদনমোহন সামন্ত , কলকাতা , ১৫  এপ্রিল  :১৬ এপ্রিল মঙ্গলবার সকাল ছটা থেকে উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ ৭২ ঘন্টার জন্য এবং বহুজন সমাজ পার্টির  প্রধান কুমারী মায়াবতী ৪৮ ঘন্টার জন্য কোনরকম নির্বাচনী প্রচারে ভাষণ দিতে পারবেন না। আদর্শ নির্বাচনবিধি লঙ্ঘনের দায়ে শাস্তিমূলক বিধিনিষেধটি আরোপ করেছে নির্বাচন কমিশন । এবারের লোকসভা নির্বাচনে  ১১ এপ্রিল প্রথম দফা মতদানের পর দ্বিতীয় দফায় মতদান হবে আগামী বৃহস্পতিবার ১৮  এপ্রিল। প্রচারের পারদ চড়তে চড়তে নির্বাচনী বক্তব্যে অপমানজনক এবং উস্কানিমূলক মন্তব্যের  বহর শালীনতার সীমা ছাড়িয়ে যাচ্ছে। শুধু তাই নয়, আদর্শ  নির্বাচনবিধি লঙ্ঘিত হচ্ছে বারবার। নখদন্তহীন নির্বাচন কমিশন নোটিশ জারি, সতর্কতামূলক উপদেশ এবং নালিশ করা ছাড়া আর কিছু করার ক্ষমতা রাখে না। তাই লাগামছাড়া হয়ে যাচ্ছে মুখের আগল।  উত্তরপ্রদেশের  মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ ৯ এপ্রিল এক নির্বাচনী জনসমাবেশে মুসলিম লীগকে "গ্রীন ভাইরাস" এবং হিন্দু-মুসলিম ভোটারদের প্রতিদ্বন্দ্বিতাকে আলি-বজরংবলীর প্রতিযোগিতা বলে উল্লেখ করেন। যার উত্তরে ১৩ এপ্রিল বদায়ুঁতে সমাজবাদী পার্টি প্রধান অখিলেশ যাদবের সঙ্গে একই মঞ্চে থাকা বহুজন সমাজ পার্টি প্রধান মায়াবতী  বলেন আলি এবং বজরংবলী একজোটের দিকেই।  তিনি বলেছিলেন, আলি আমাদের ।  বজরঙ্গবলীও  আমাদের। আমরা দুপক্ষকেই চাই । বিশেষ করে বজরংবলীকে যেহেতু তিনি দলিত সম্প্রদায়ের।   যোগীর কথামতো বজরংবলী বনবাসী এবং দলিত ছিলেন। এই ঘটনার আগেও  দেওবন্দে ৭ এবং ৯ এপ্রিল যথাক্রমে যোগী  এবং  মায়াবতীর ভাষণে আদর্শ নির্বাচন বিধি ভঙ্গের জন্য দু'জনকেই নির্বাচন কমিশন নোটিশ জারি করেছিলেন।  জাতি-ধর্ম উল্লেখ করে ঘৃণামূলক এবং উস্কানিমূলক কোন বক্তব্য নির্বাচনী ভাষণে রাখা যায় না। এমনটি করলে তাতে  আদর্শ নির্বাচন বিধি ভঙ্গ হয় । দেশের সর্বোচ্চ আদালত সুপ্রিম কোর্ট এ বিষয়ে কড়া নজর রাখছে এবং  এই দু'জনের বিরুদ্ধে  নির্বাচন কমিশন কী ব্যবস্থা নিয়েছে তা জানতে চেয়েছে। প্রধান বিচারপতি রঞ্জন গগৈকে মাথায় রেখে  বিচারপতিদের একটি  বেঞ্চ নির্বাচন সংক্রান্ত  বিধি লংঘন ইত্যাদি নজর রাখছে।  এক প্রশ্নের উত্তরে নির্বাচন কমিশন সুপ্রিম কোর্টকে জানিয়েছে তারা নখদন্তহীন। বিধি লঙ্ঘনের ঘটনা ঘটলে তারা প্রথমে নোটিশ  জারি করতে পারেন। পরবর্তী পর্যায়ে সতর্কতামূলক উপদেশ দিতে পারেন এবং সবশেষ পর্যায়ে নালিশ জানাতে পারেন। এছাড়া তারা আর কিছু করতে পারেন না।

You can share this post!

Comments System WIDGET PACK

Download Our Android App from Play Store and Get Updated News Instantly.