Top Stories
  1. সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হলো ভূমি পেডনেকারের চামড়া পুড়ে যাওয়া ছবি!
  2. সল্টলেকে গভীর রাতে চললো দুষ্কৃতী তান্ডব, ভাঙা হয়েছে পাইপ লাইন!
  3. জ্বরের রোগী বেপাত্তা হাসপাতাল থেকে, ব্যাখ্যা নেই কর্তৃপক্ষ এবং পুলিশের কাছে!
  4. বিজেপি প্রার্থী লকেট চ্যাটার্জির ব্যান্ডেলের বাড়িতে দুষ্কৃতী হামলা!
  5. ভাতারে কবর থেকে এক শিশু কন্যার দেহ উদ্ধার করছে পুলিশ
  6. মাথায় বন্দুক ঠেকিয়ে নববধূকে নিয়ে পালাল প্রেমিক
  7. জন আক্রোশ সভা'য় বক্তব্য রাখতে গিয়ে থাপ্পর  খেলেন  কংগ্রেস নেতা হার্দিক প্যাটেল
  8. ভোটের আগে সন্ত্রাসের বাতাবরণ সৃষ্টি  করছে তৃণমূল অভিযোগ বিজেপির, বিজেপি যুব সভাপতির বাড়িতে বোমাবাজি ।
  9. মঞ্চে বক্তব্য রাখছিলেন কংগ্রেস নেতা হার্দিক প্যাটেল, হঠাৎ সাদা পাজামা পাঞ্জাবি পরিহিত এক ব্যক্তি মঞ্চে উঠে সরাসরি থাপ্পড় মারলেন তাকে
news-details
politics

মুসলিম ভোটে ধ্বসের আশংকা তৃণমূলের, বাংলাদেশের শিল্পী নিয়ে ভোটের প্রচার 

 

নিজস্ব সংবাদদাতা,১৫ই এপ্রিল: রায়গঞ্জ লোকসভা কেন্দ্রে বাংলাদেশি অভিনেতা ফেরদৌসের নির্বাচনী প্রচারে রোডশো করা নিয়ে বিতর্ক তৈরি হয়েছে। বিদেশী অভিনেতার এই ভাবে সরাসরি রাজ্যের শাসক দলের হয়ে নির্বাচনী প্রচারে অংশ নেওয়া আদৌ নীতিসম্মত কিনা সেই প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে। সোশ্যাল মিডিয়াতে রোডশোর ছবি সহ খবর প্রকাশ্যে আসতেই সমালোচনার ঝড় বইতে শুরু করেছে। রবিবার উত্তরবঙ্গের রায়গঞ্জে একটি রোডশোয়ের আয়োজন করেছিল রাজ্যের শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেস। সেই রোডশোয়ের প্রধান আকর্ষণ ছিলেন বাংলাদেশের জনপ্রিয় অভিনেতা ফেরদৌস। সঙ্গে অবশ্য কলকাতার অভিনেতা অঙ্কুশ ও অভিনেত্রী পায়েলও ছিলেন। ছিলেন প্রার্থী স্বয়ং। দেখা গেছে, ফেরদৌস ট্রাকের উপরে দাঁড়িয়ে হাত নাড়ছেন।
হাত জোড় করে অভিনন্দন জানাচ্ছেন। তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থী কানাইয়ালাল আগরওয়ালের হয়ে ভোট দেবার আবেদনও জানিয়েছেন। এদিন রায়গঞ্জের পাশাপাশি হেমতাবাদেও আরেকটি রোডশো-এ টালিগঞ্জের সহ-অভিনেতাদের সঙ্গে অংশ নিয়েছেন ফেরদৌস। সোমবার করণদিহি এবং ইসলামপুরেও দুইটি নির্বাচনী প্রচারণায় অংশ নিতে দেখা যেতে পারে তাকে। নিঃসন্দেহে ভোট প্রচারে বিদেশী তারকা এনে তৃণমূল কংগ্রেস নজির তৈরি করেছে। অতীতে এমন নজির রয়েছে বলে কেউ মনে করতে পারেন নি।  ফেরদৌস বাংলাদেশের মতো কলকাতাতেও জনপ্রিয়। অভিনেত্রী রচনা বন্দ্যোপাধ্যায় ও ঋতুপর্ণ সেনগুপ্তের সঙ্গে জুটি করে তিনি টালিগঞ্জে অনেক ছবিতে অভিনয় করেছেন। রাজনৈতিক মহলের একাংশের মতে, রায়গঞ্জ কেন্দ্রের ৫০ শতাংশ সংখ্যালঘু ভোটের দিকে তাকিয়েই ফেরদৌসকে প্রচারে আনা হয়েছে। বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ তার প্রতিক্রিয়ায় জানিয়েছেন, '' ভারতের একটি নিবন্ধিত রাজনৈতিক দল কিভাবে বিদেশী নাগরিককে দিয়ে পশ্চিমবঙ্গে রোড শো করাচ্ছে? আমি এরকম আগে শুনিনি। আগামীকাল হয়তো আমাদের মমতা ব্যানার্জি পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানকে তৃণমূলের হয়ে নির্বাচনী প্রচারে  অংশ নেওয়ার জন্য ডাকতে পারেন। আমরা এই ঘটনার নিন্দা জানাই।''  তিনি আরও বলেছেন, '' একজন বাংলাদেশী অভিনেতাকে ব্যবহার করে রাজ্যের ক্ষমতাসীন দল উত্তর দিনাজপুর জেলার ৫০ শতাংশ মুসলিম ভোট নিজেদের দিকে টানতে চাইছে। তৃণমূল আসলে আমাদের দেখে ভয় পেয়ে গেছে, তাই বিদেশ থেকে অভিনেতা নিয়ে আসছে।'' 
 তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থী অবশ্য এসব প্রশ্নকে আমলেই দিচ্ছেন না। তৃণমূল কংগ্রেস সমর্থকদের মতে, আমাদের হৃদয়ে তো একটাই বাংলাদেশ। তাই ভাষা ও সংস্কৃতির মেলবন্ধনের পাশাপাশি রাজনীতিতেও যদি এমন মেলবন্ধন থাকে তাতে ক্ষতি কি? রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকদের মতে, টালিগঞ্জে এখন তৃণমূল কংগ্রেস রাজত্ব বিরাজ করছে। এই দলের হয়ে প্রচার করছেন অধিকাংশ অভিনেতা ও অভিনেত্রীরা। তাই ফেরদৌসের কাছে প্রস্তাব আসায় তিনি তা উপেক্ষা করতে পারেন নি। কারণ, টালিগঞ্জে টিকে থাকতে হলে শাসক দলের এই অনুরোধটুকুকে মান্যতা দিতেই হতো।
কিন্তু সমগ্র বিষয়টি খুবই গুরুত্বপুর্ন ইস্যু হতে চলেছে । একজন বিদেশী নাগরিকের  এই ভাবে কোনও রাজনৈতিক দলের হয়ে প্রচারে নামা দুই দেশের সম্পর্কের ক্ষেত্রেও স্বাভাবিক বিষয় হতে পারেনা বলেই আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিষয়ক বিশেষজ্ঞদের অভিমত । বিষয়টি নিয়ে নির্বাচন কমিশনের দ্বারস্থ হওয়া যেতে পারে । দ্বিতীয়ত তৃনমূল কি আশংকা করছে যে সত্যি সত্যি সংখ্যালঘু ভোটে ধ্বস নামছে তাদের ?

You can share this post!

Comments System WIDGET PACK

Download Our Android App from Play Store and Get Updated News Instantly.