Top Stories
  1. সল্টলেকে গভীর রাতে চললো দুষ্কৃতী তান্ডব, ভাঙা হয়েছে পাইপ লাইন!
  2. জ্বরের রোগী বেপাত্তা হাসপাতাল থেকে, ব্যাখ্যা নেই কর্তৃপক্ষ এবং পুলিশের কাছে!
  3. বিজেপি প্রার্থী লকেট চ্যাটার্জির ব্যান্ডেলের বাড়িতে দুষ্কৃতী হামলা!
  4. ভাতারে কবর থেকে এক শিশু কন্যার দেহ উদ্ধার করছে পুলিশ
  5. মাথায় বন্দুক ঠেকিয়ে নববধূকে নিয়ে পালাল প্রেমিক
  6. জন আক্রোশ সভা'য় বক্তব্য রাখতে গিয়ে থাপ্পর  খেলেন  কংগ্রেস নেতা হার্দিক প্যাটেল
  7. ভোটের আগে সন্ত্রাসের বাতাবরণ সৃষ্টি  করছে তৃণমূল অভিযোগ বিজেপির, বিজেপি যুব সভাপতির বাড়িতে বোমাবাজি ।
  8. মঞ্চে বক্তব্য রাখছিলেন কংগ্রেস নেতা হার্দিক প্যাটেল, হঠাৎ সাদা পাজামা পাঞ্জাবি পরিহিত এক ব্যক্তি মঞ্চে উঠে সরাসরি থাপ্পড় মারলেন তাকে
  9. থিয়েটার ওয়ার্কশপে  বিবস্ত্র  ছাত্রছাত্রী !  পুলিশে নালিশ জানাল এক মিডিয়া স্টাডিজের ছাত্রী
news-details
politics

 “১০০ শতাংশ বুথে কেন্দ্রীয় বাহিনী না থাকলেও কোনও সমস্যা নেই বুথ সামলাবে আমার কর্মীরা : মহম্মদ সেলিম  


শিলিগুড়ি  বার্তা ওয়েব ডেস্ক, ১৪ এপ্রিল : পশ্চিমবঙ্গে লোকসভা ভোটের আগে থেকেই বিজেপি কেন্দ্রীয় বাহিনীর জন্য নির্বাচন কমিশনে ধর্না দিয়ে আসছিল।  দাবী ছিল প্রতিটি বুথেই চাই কেন্দ্রীয় বাহিনী। বিরোধীদের দাবিকে স্বীকৃতি দিয়ে দ্বিতীয় দফার ভোটে আরও বাহিনী আনছে কমিশন।  রাজ্যে আসছে আরও ৪০ কোম্পানি আধাসেনা। ১০০-রও বেশি কেন্দ্রীয় বাহিনীর নিরাপত্তায় হবে দ্বিতীয় দফার ভোট। 

রায়গঞ্জের সিপিএম প্রার্থী মহম্মদ সেলিম সে সবের ধার ধারছেন না। কিন্তু কেন ? তাঁর দাবি, “১০০ শতাংশ বুথে কেন্দ্রীয় বাহিনী না থাকলেও কোনও সমস্যা নেই। আমার বুথ সামলাবে আমার কর্মীরা।  
উল্লেখ্য, দ্বিতীয় দফায় ১৮ এপ্রিল ভোট রায়গঞ্জে। রায়গঞ্জ লোকসভা কেন্দ্রে এবার চতুর্মুখী লড়াই। একদিকে বিদায়ী  সাংসদ তথা সিপিআইএম প্রার্থী মহম্মদ সেলিম, অন্যদিকে কংগ্রেস প্রার্থী দীপা দাসমুন্সি। তৃণমূল প্রার্থী ইসলামপুরের বিধায়ক কানাহাইয়া লাল আগরওয়াল। বিজেপির প্রার্থী  দেবশ্রী চৌধুরী। তবে মূল লড়াইটা যে দীপা দাসমুন্সি ও মহম্মদ সেলিমের মধ্যে তা স্পষ্ট। প্রচারে অন্যান্য প্রতিদ্বন্দ্বীদের থেকে অনেক এগিয়ে মহম্মদ সেলিম।
 নিজের কেন্দ্রের বিভিন্ন বিধানসভায় মিছিল, মহামিছিল, বাইক মিছিল এমনকি রান্নাঘরের হেঁসেলে পৌছে প্রচার সারছেন সিপিআইএম প্রার্থী তথা পলিটব্যুরো সদস্য মহম্মদ সেলিম। এদিন হেমতাবাদ বিধানসভা কেন্দ্রে মহম্মদ সেলিমের সমর্থনে মিছিলে যুব সম্প্রদায়ের ভিড় ছিল চোখে পড়ার মতো। আর সেই ভিড় দেখেই এই মন্তব্য করেন বাম প্রার্থী। দ্বিতীয় দফায় ১৮ এপ্রিল ভোট হবে রায়গঞ্জে। যদিও দ্বিতীয় দফার জন্য আরও ৪০ কোম্পানি আধাসেনা আসছে এরাজ্যে। যার ফলে ১০০ কোম্পানিরও বেশি কেন্দ্রীয় বাহিনীর নিরাপত্তায় হবে দ্বিতীয় দফার ভোট। শেষ হাসি কে হাসবেন তা সময় বলবে। অপেক্ষা শুধু কয়েকটা দিনের।

You can share this post!

Comments System WIDGET PACK

Download Our Android App from Play Store and Get Updated News Instantly.