Top Stories
  1. লুচি আলুর দমের পর ' ভারত মাতার জয়' , সব্যসাচীকে ঘিরে সন্দেহ দানা বাঁধছে তৃণমূলের অন্দরেই
  2. বিজেপির ২৭টি আসনে প্রার্থী ঘোষণা হতে পারে আজ।
  3. তিন সহকর্মীকে গুলিতে ঝাঁঝরা করে, আত্মহত্যার চেষ্টা জওয়ানের 
  4. লোকসভা নির্বাচনের প্রার্থী বাছতে বিজেপি দফতরে মধ্য রাত পেরিয়ে গেল মোদী- শাহের
  5. আদিবাসী বলয়ে অর্জুনেই কি ভরশা রাখছেন বিজেপি নেতৃত্ব?
  6. পাঁচ হাজারে লিড দিলেই এক কোটির কাজ?উঠছে প্রশ্ন
  7. উত্তর-পুর্বে জোর ধাক্কা খেল  বিজেপি, দল ছাড়লেন ২ মন্ত্রী, ৬ বিধায়ক 
  8. সাতসকালে মোবাইল হাত সাফাই করতে গিয়ে  উত্তম মধ্যম পেল পকেটমার
  9. ভোটের মুখে পুলিশের জালে আন্তঃরাজ্য অস্ত্র কারবারি 
  10. বিধ্বংসী আগুনে পুড়ে গেল গরু ছাগল সহ বাসগৃহ
news-details
politics

রাজীব কুমারকে বাদ দিয়েই চলুক নির্বাচন প্রক্রিয়া, কমিশনের কাছে দাবী বিজেপির!

 

শিলিগুড়ি বার্তা ওয়েব ডেস্ক,১৩ইমার্চ:রাজীব কুমারকে নির্বাচনী কাজের সঙ্গে যুক্ত করা যাবেনা, তাঁকে বাদ দিয়েই নির্বাচন প্রক্রিয়া চলুক এমনটাই নির্বাচন কমিশনারকে জানালেন বিজেপি নেতারা । 

বিজেপির আরও দাবী ভোটের সময় বাংলাকে অতি স্পর্ষকাতর ঘোষণা করা হোক৷ সমস্ত  বুথই স্পর্ষকাতর ঘোষণা করা হোক, বুধবার নির্বাচন কমিশনে গিয়ে এই দাবি জানান কেন্দ্রীয় মন্ত্রী রবিশংকর প্রসাদ৷

বুধবার বিজেপির প্রতিনিধি দলে ছিলেন বিজেপি নেতা রবিশঙ্কর প্রসাদ ছাড়াও ছিলেন  কৈলাস বিজয়বর্গীয়,  ভূপেন যাদব এবং  এরাজ্যের বিজেপি নেতা মুকুল রায়ও।
বিজেপির পক্ষ থেকে কমিশনকে জানানো হয় বাংলার বেশ কিছু পুলিশ শাসক দলের হয়ে কাজ করছেন ।  গত পঞ্চায়েত ভোটে গোটা বাংলায় হিংসা ছড়িয়েছিল৷ রাজনৈতিক হিংসার বলি হয়েছিলেন বেশ কয়েকজন৷ সেই উদাহরণ এদিন কমিশনের কাছে পেশ করেন গেরুয়া শিবিরের নেতারা ।  

 বুধবার বিজেপির পক্ষ থেকে কমিশনকে বলা হয় পশ্চিমবঙ্গে সংবাদ মাধ্যমও নিরপেক্ষভাবে কাজ করতে পারেন না৷ তৃণমূলের ভয়ে তা করা সম্ভব নয়৷ তাই কমিশনের কাছে এই বিষয়টি দেখভালের জন্য পর্যবেক্ষক নিয়োগের দাবি করা হয়েছে বিজেপির পক্ষ থেকে৷

কমিশনের গাইড লাইন মেনে কলকাতার পুলিশ কমিশনার পদ থেকে সরানো হয়েছে রাজীব কুমারকে৷ এডিজি, সিআইডি পদে তাঁকে বদলি করা হয়৷ তবে রাজীব কুমারকে নির্বাচন প্রক্রিয়া থেকে দূরে রাখার আবেদন জানিয়ে এদিন কমিশনের দ্বারস্থ হয় বিজেপি৷ রাজধানীর উত্তাপ এসে পড়ে বাংলার বুকেও৷ ফের একবার রাজীব কুমার নিয়ে রাজনীতি উত্তাল হওয়ার জোগাড়।


ফেব্রুয়ারির প্রথমেই রাজীব কুমারকে সিবিআই জেরা নিয়ে কেন্দ্র রাজ্য সংঘাত চরমে পৌঁছেছিল৷ সারদা তদন্তে কেন না জানিয়ে পুলিশ কমিশনারের বাড়িতে গেল কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থার আধিকারীকরা৷ প্রশ্ন তোলেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ রাজনৈতিক স্বার্থে সিবিআইকে ব্যবহার করছে বিজেপি,অভিযোগ করেন মমতা৷
প্রতিবাদে ধর্নায় বসেন মুখ্যমন্ত্রী৷ কেলেঙ্কারি ঢাকা দিতেই মুখ্যমন্ত্রীর এই আন্দোলন বলে অভিযোগ করে বিজেপি৷ কেন রাজনৈতিক ধর্নায় থাকবেন রাজ্যে কর্মরত পাঁচ আইপিএস৷ তা নিয়ে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট দফতর থেকে জানতে চাওয়া হয় রাজ্যের মুখ্য সচিবের কাছে৷
         
 কমিশনের কাছে বিজেপি নেতাদের আবেদন, মানুষ যাতে নির্ভয়ে ভোট কেন্দ্র যেতে পারেন তার জন্য পর্যাপ্ত নিরাপত্তারক্ষীর পাশাপাশি কমিশনের পর্যবেক্ষকরাও যথাযথ উদ্যোগ নিন।

 

 

ইন্টারনেট চিত্র।

You can share this post!

Comments System WIDGET PACK

Download Our Android App from Play Store and Get Updated News Instantly.