news-details
politics

নরেন্দ্র মোদীকে পার্টটাইম দেশের  প্রধানমন্ত্রী বলে বলে খোঁচা রাহুলের 

 

নিজস্ব সংবাদদাতা, ০৬ ডিসেম্বর : তেলেঙ্গানার  নির্বাচনের একেবারে চুড়ান্ত মুহূর্তে বেনজির শ্লেষ আর ব্যঙ্গে নরেন্দ্র মোদীকে বিঁধলেন কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী ।  চাওয়ালা’ নরেন্দ্র মোদী নিজের ‘শক্তি’ জাহির করে গাঁন্ধী পরিবারকে হুমকি দিচ্ছেন সকাল থেকে। পরোয়া না করে রাহুল গাঁন্ধী উল্টে তোপ দাগলেন ভোটমুখী রাজ্য তেলঙ্গানা থেকে। সাংবাদিক বৈঠক করলেন চন্দ্রবাবু নায়ডুকে পাশে বসিয়ে। আর দিনের শেষে টুইট করে বললেন, ‘‘এখন প্রচার শেষ। আশা করি প্রধানমন্ত্রী হিসেবে যে পার্ট-টাইম কাজ করেন তা করেও একটু সময় বাঁচাতে পারছেন। আপনি প্রধানমন্ত্রী হওয়ার পরে ১৬৫৪ দিন হয়ে গেলেও এক বারও সাংবাদিক বৈঠক করেননি। মাঝে মাঝে এমন সাংবাদিক বৈঠক করুন। প্রশ্ন শুনতে ভালই লাগবে।’’
    বছরের অর্ধেক সময় দেশের বাইরে বিদেশ সফরে থাকেন এই কারনে বিরোধীরা অনেকেই তাঁকে ভারতের কম আর বিদেশের প্রধানমন্ত্রী বেশি বলে কটাক্ষ করে থাকেন কিন্তু রাহুল গান্ধীর ''পার্ট টাইম প্রধানমন্ত্রী'' শব্দ চয়ন মোদীকে ২০১৯ অবধি তাড়া করবে বলে বিশেষজ্ঞদের মতামত। 

 বুধবার ঠিক বিকেল পাঁচটায় ভোট প্রচার শেষ হওয়ার কথা। তার ঠিক পনেরো মিনিট আগে যৌথ সাংবাদিক বৈঠক করেন রাহুল আর চন্দ্রবাবু। সঙ্গে ছিলেন জোটের অন্য শরিকেরাও। রাহুল সাফ বুঝিয়ে দিলেন, তেলঙ্গানায় জোট গড়ে চন্দ্রশেখর রাওকে উৎখাত করবেন মানুষ। একই ভাবে লোকসভা ভোটে লড়াই হবে নরেন্দ্র মোদীর বিরুদ্ধে। অনিল অম্বানীর মতো শিল্পপতি বন্ধুদের লক্ষ লক্ষ কোটি টাকা মাফ করে যে ভাবে বেকারি ও কৃষকদের দুরবস্থা তৈরি করেছেন প্রধানমন্ত্রী, লোকসভায় তার খেসারত দিতে হবে।

রাহুলকে প্রশ্ন করা হয়, এক সময়ে বিপক্ষে থাকা চন্দ্রবাবুর সঙ্গে এখন জোট করলেও দুই দলের কর্মীদের একজোট করবেন কী করে? রাহুলের জবাব, ‘‘তাঁরা নিজেরাই জোট বেঁধেছেন। আমার কিছু করার দরকারই নেই। এই বার্তাটিই তেলঙ্গানার বাইরেও প্রসারিত হবে।’’ অমিতের বক্তব্য, ‘‘চন্দ্রবাবু নায়ডু দিল্লিতে আমাকে বলেছিলেন, নরেন্দ্র মোদী আর অমিত শাহের কবল থেকে সকলে নিষ্কৃতি চাইছেন। জিএসটি, নোটবন্দি করে প্রধানমন্ত্রী অপরাধ করেছেন। মানুষ নাজেহাল।’’

সংসদের অধিবেশন শুরুর আগেই বিরোধীরা বৈঠকে বসছেন। তার প্রস্তুতি তেলঙ্গানা থেকেই শুরু করে  দিলেন রাহুল। কংগ্রেসের নেতাদের দাবি, আজ সকালে নিজেকে ‘চাওয়ালা’ বলে অগুস্তা মামলায় প্রধানমন্ত্রী নানা ভাবে গাঁন্ধী পরিবারকে হুমকি দিয়েছেন। কিন্তু রাহুল গাঁন্ধী একেবারেই চিন্তিত নন। কংগ্রেস রাফাল আর প্রধানমন্ত্রীর দুর্নীতি নিয়ে সরব হবে। 
এদিন মোদীকে কটাক্ষ করে কংগ্রেসে নেতা  দিগ্বিজয় সিংহ বলেন, '' চাওয়ালার সহানুভুতি মোদীজী আজও কুড়িয়ে বেড়ান !  আমি এক জন মাত্র গ্রাহককে খুঁজছি, যিনি নরেন্দ্র মোদীর হাত থেকে চা কিনে খেয়েছেন।’’

You can share this post!

Comments System WIDGET PACK

Download Our Android App from Play Store and Get Updated News Instantly.