Top Stories
  1. লুচি আলুর দমের পর ' ভারত মাতার জয়' , সব্যসাচীকে ঘিরে সন্দেহ দানা বাঁধছে তৃণমূলের অন্দরেই
  2. বিজেপির ২৭টি আসনে প্রার্থী ঘোষণা হতে পারে আজ।
  3. তিন সহকর্মীকে গুলিতে ঝাঁঝরা করে, আত্মহত্যার চেষ্টা জওয়ানের 
  4. লোকসভা নির্বাচনের প্রার্থী বাছতে বিজেপি দফতরে মধ্য রাত পেরিয়ে গেল মোদী- শাহের
  5. আদিবাসী বলয়ে অর্জুনেই কি ভরশা রাখছেন বিজেপি নেতৃত্ব?
  6. পাঁচ হাজারে লিড দিলেই এক কোটির কাজ?উঠছে প্রশ্ন
  7. উত্তর-পুর্বে জোর ধাক্কা খেল  বিজেপি, দল ছাড়লেন ২ মন্ত্রী, ৬ বিধায়ক 
  8. সাতসকালে মোবাইল হাত সাফাই করতে গিয়ে  উত্তম মধ্যম পেল পকেটমার
  9. ভোটের মুখে পুলিশের জালে আন্তঃরাজ্য অস্ত্র কারবারি 
  10. বিধ্বংসী আগুনে পুড়ে গেল গরু ছাগল সহ বাসগৃহ
news-details
State

"আমি মৃত্যুর অপেক্ষায় আছি। যে কোনও দিন মারা যেতে পারি।” সারদা কর্তা সুদীপ্ত সেনের শ্লেষ উক্তিবাক্য 

 

নিউজ ডেস্ক,১৪ই মার্চ: "আজকে রাজা কালকে ফকির " এই প্রবাদটা অক্ষরে অক্ষরে ফলে গিয়েছে সুদীপ্ত সেনের ক্ষেত্রে। রাজনৈতিক নেতাদের খপ্পরে পরে আজকে তিনি সত্যিই ফকির। একদিনের রাজা সারদা কর্তা সুদীপ্ত সেনের ভাগ্যের কি নিদারুণ পরিহাস যে তাকে জেলের ঘানি টানতে হচ্ছে। অবশ্য সুদীপ্তর সংস্পর্শে থানা অনেক আমলা, নেতা, মন্ত্রী, জেলের ঘানি টেনেছেন, আবার অনেক রাঘব বোয়াল এখন বহাল তবিয়তে ঘুরে বেড়াচ্ছেন, কেন তারা জেলের ঘানি টানবেন না, সেই প্রশ ঘুরপাক খাচ্ছে আমানতকারীদের মনে! 

একদা যে সুদীপ্ত সেন টাকার বিছানায় শুতেন,আজ তিনি নিঃস্ব। বিলাস বহুল জীবন যাপন, আজকে তার কাছে শুধু মাত্র স্বপ্ন ! 
আজ বারাসত আদালতে ঢোকার পথে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে এমনটাই জানালেন সারদাকর্তা সুদীপ্ত সেন বললেন 
"আমি মৃত্যুর অপেক্ষায় আছি। যে কোনও দিন মারা যেতে পারি।” 
কেন মৃত্যুর কথা ভাবছেন?
সাংবাদিকদের এই প্রশ্নের উত্তরে সুদীপ্ত সেন বলেন, “আমার সারদার সব সম্পত্তি শেষ হয়ে গিয়েছে। আমি আর বাঁচব না।” আজ সারদা মামলায় আদালতে পেশ করা হয় সুদীপ্ত সেনকে। সংশোধনাগার থেকে পুলিশি পাহারায় বারাসত আদালতে নিয়ে আসা হয় সুদীপ্তকে। পুলিসের গাড়ি থেকে আদালতের পথে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হন তিনি। সেখানেই তিনি বলেন, “আমি মৃত্যুর অপেক্ষায় আছি। যে কোনও দিন মারা যেতে পারি।” কার জন্য এমন অবস্থা হল তার? এই প্রশ্নের কোন উত্তর না দিয়েই কড়া পুলিসি ঘেরাটোপে আদালতে ঢুকে পড়েন সুদীপ্ত সেন। এদিন সারদা মামলায় সুদীপ্ত সেন ছাড়াও আদালতে পেশ করা হয় সুদীপ্তর ছায়া সঙ্গী দেবযানী মুখোপাধ্যায়কেও। সুদীপ্ত সেনের বক্তব্য নিয়ে কোনও মন্তব্য করতে চাননি তিনি।
সারদাকাণ্ড প্রকাশ্যের আসার পর ২০১৩ সালের ২৩ এপ্রিল কাশ্মীরের গুলমার্গ থেকে গ্রেফতার করা হয় সারদা সংস্থার কর্তা সুদীপ্ত সেন। তার পর থেকে জেলের ঘানি টানছেন তিনি। যদিও সারদার সম্পত্তি বিক্রি করে বকেয়া টাকা মেটানোর জন্য সুদীপ্ত সেন বারবার আবেদন করলেও আদালতে তা গ্রাহ্য হয়নি।

 

 

ইন্টারনেট চিত্র।

You can share this post!

Comments System WIDGET PACK

Download Our Android App from Play Store and Get Updated News Instantly.