news-details
State

ধারাবহিক যৌন নির্যাতনে তিক্ত বিরক্ত হয়েই স্বামী রজতকে খুন  করেছি ,  পুলিশের কাছে  দাবী অনিন্দিতার 

কলকাতা ০৪ ডিসেম্বর : নিউটাউনের আইনজীবী রজত দে ধারাবহিক  যৌন নির্যাতন করতেন তাঁর স্ত্রীকে এবং তা থেকে পরিত্রান পেতেই খুন করেছিলেন স্বামীকে । পুলিশের কাছে এমনটাই দাবী রজতের আইনজীবী স্ত্রী অনিন্দিতার । 
 অনিন্দিতার আইনজীবীও আদালতকে  জানিয়েছেন ,  শারীরিক ও মানসিক ভাবে স্বামীর অত্যাচরের শিকার ছিলেন তাঁর মক্কেল । রবিবার অর্থাৎ ২৫শে নভেম্বর রাতে সেই অত্যাচার চরমে ওঠে আর সেই ক্রোধ থেকেই অনিন্দিতা খুন করে ফেলে রজতকে ।  
কিরকম ছিল অত্যাচার তার বর্ননা দিতে গিয়ে অনিন্দিতা পুলিশকে জানিয়েছেন ,  যৌনমিলনে তার ইচ্ছা অনিচ্ছার কোনও মূল্য ছিলনা রজতের কাছে । কিছুদিন আগেই তাঁর ফেলোপিয়ন টিউবে একটি অপারেশন হয় এবং ডাক্তার পরামর্শ দেন কয়েকমাস যৌন সঙ্গমে না যাওয়ার জন্য ।  রজত সেই পরামর্শ মানতে চায়নি । খুনের ঘটনার রাতে এই যৌনসংগম এড়ানোর জন্যই অনিন্দিতা আলাদা ঘরে শুয়েছিল কিন্তু রজত এমনই চিৎকার চেঁচামেচি শুরু করে দেয় যে সে রজতের ঘরে ফিরে আসে এবং তারপরেই বচসায় জড়িয়ে পড়ে দুজনে ।  এরপরেই খুনের ঘটনা ঘটে । 
     এই খুন প্রসঙ্গে পুলিশ জানিয়েছিল রজতের গলায় কাপড় রাখার পর মোবইল চার্জারের কড ব্যবহার করা হয় শ্বাসরোধ করার জন্য ।
   
উল্লেখ্য  গত ২৬শে নভেম্বর নিজের ফ্ল্যাট থেকেই মৃত অবস্থায় মেলে আইনজীবী রজত দে’র দেহ৷ প্রাথমিক ভাবে অনিন্দিতা আত্মহত্যার তত্ত্ব প্রতিষ্টা করতে চাইলেও পুলিশি জেরায় সে স্বীকার করে রজতকে খুনের কথা। কিন্তু কি কারনে খুন তাই নিয়ে ধন্দে ছিল পুলিশ । 
পুলিশ অবশ্য যৌন নির্যাতনের দাবী এখুনি মেনে নিচ্ছেনা। পুলিশের এক আধিকারিক জানিয়েছেন , অনিন্দিতা তাঁর বয়ান একাধিকবার বদলেছে এটা আমরা নজরে রেখেছি। তাঁর ডাক্তারি পরীক্ষার রিপোর্ট আমরা সংগ্রহ করেছি। তাঁকে আরও জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে ।

You can share this post!

Comments System WIDGET PACK

Download Our Android App from Play Store and Get Updated News Instantly.