news-details
State

বৌদির সাথে অবৈধ সম্পর্ক, জানতে পারায়  খুন হলেন স্ত্রী

তমলুক, ১২ নভেম্বর: বৌদির সাথে অবৈধ সম্পর্ক স্বামীর। স্ত্রী জানতে পারায় খুন করা হয় তাকে। এমনটাই অভিযোগ বাপের বাড়ির।

ঘটনাটি ঘটেছে তমলুক পৌরসভার ১২ নং ওয়ার্ডের পদুমবসান গ্রামে। মৃত গৃহবধূর নাম নবনীতা দাস। কলকাতা থেকে গৃহবধূর বাপের বাড়ির লোকজন তমলুক থানায় অভিযোগ জানাতে গেলে অভিযোগ না নেওয়ায় বাপের বাড়ির লোকেদের বিক্ষোভ ও পুলিশের সাথে ধস্তাধস্তি শুরু হয় তমলুক থানায়।


অন্যদিকে সংবাদ মাধ্যম ছবি করতে গেলে বাধা দেয় পুলিশ। সূত্রের খবর, তমলুকের ১২ নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা লক্ষ্মণ দাসের সাথে ২০০৬ সালে কোলকাতার নরেন্দ্রপুরের নবনীতার বিয়ে হয়। তাদের এগারো বছরের একটি ছেলেও আছে। বাপের বাড়ির অভিযোগ, লক্ষ্মণের সাথে নবনীতার মনোমালিন্য চলছিল বহুদিন ধরে। লক্ষ্মণের নিজের বড় বৌদির সাথে অবৈধ সম্পর্ক ছিল। নবনীতা এই বিষয়ে তার ছোট বোন অনিন্দিতাকে জানিয়েছিল। শনিবার বিকেলে লক্ষ্মণ দাস নবনীতার বাপের বাড়িতে ফোন করে জানায়, নবনীতা শ্বাষ কষ্টে মারা গেছে। পরবর্তীতে তার দেহ তমলুক হাসপাতালে গেলেও তাকে কেউ দেখতে পায়নি। ততক্ষণে দেহ মর্গে নিয়ে চলে যায়। 


রবিবার সকাল থেকেই নবনীতার বাপের বাড়ির লোকজন তমলুক থানায় অভিযোগ দায়ের করার জন্য অপেক্ষা করে। অভিযোগ না নেওয়ায় বিক্ষোভে ফেটে পড়ে তারা।

You can share this post!

Comments System WIDGET PACK

Download Our Android App from Play Store and Get Updated News Instantly.