Breaking News

সীমান্তে অনুপ্রবেশকারী, চোরাচালান ও পাচার রুখতে থার্মাল ইমেজার ব্যবহারের উদ্যোগ নিল বর্ডার সিকিউরিটি ফোর্স (বিএসএফ)

Image
 

নিজস্ব সংবাদদাতা,৫ই ডিসেম্বর : সীমান্তে অনুপ্রবেশকারী, চোরাচালান ও পাচার রুখতে থার্মাল ইমেজার ব্যবহারের উদ্যোগ নিয়েছে বর্ডার সিকিউরিটি ফোর্স (বিএসএফ),জানালেন বিএসএফের উত্তরবঙ্গের আইজি অশ্বিনীকুমার সিং।

 বেশ কয়েক মাস ধরে অনুপ্রবেশকারীর পাশাপাশি ইন্দো-বাংলাদেশ সীমান্ত দিয়ে চোরাচালান ও মাদক পাচারের মতো প্রবণতাও বৃদ্ধি পেয়েছে। সামনে শীতের মরশুম আসায় থার্মাল ইমেজার ওই ধরনের অপরাধ রুখতে কার্যকরী হবে বলে জানান আইজি। এদিন অশ্বিনীকুমার সিং বলেন, “ইন্দো-বাংলাদেশ সীমান্ত দিয়ে মূলত অনুপ্রবেশকারীদের আটকানোই মূল লক্ষ্য। কিন্তু সম্প্রতি চোরাচালান, মাদক পাচারের মতো অপরাধের প্রবণতাও বৃদ্ধি পেয়েছে। তবে একাধিক অভিযানে দুষ্কৃতীদের সেই পরিকল্পনা বিএসএফ জওয়ানরা ভেস্তে দিতে সক্ষম হয়েছে।”
 মালদহ থেকে কোচবিহার পর্যন্ত ৯৩৬ কিলোমিটার ইন্দো-বাংলাদেশ সীমান্ত প্রহরার দায়িত্বে রয়েছে বিএসএফ। সীমান্তের ৭৫ শতাংশ কাঁটাতার রয়েছে। ২০১৯ সালে একাধিক অভিযান চালিয়ে ১২ কোটি ৭৮ লক্ষ ২ হাজার ৪৪৫ টাকার চোরাচালান সামগ্রী উদ্ধার হয়েছে। পাশাপাশি গবাদি পশু, ফেনসিডিল, মাদক, গাঁজা, আগ্নেয়াস্ত্র উদ্ধার হয়েছে। এছাড়া ল বাংলাদেশি টাকার সঙ্গে, মার্কিন ডলার, কচ্ছপের চামড়া, পরিযায়ী পাখি উদ্ধার হয়েছে। একইভাবে ৭৯ জন অনুপ্রবেশকারী সহ দেশি ও বিদেশি পাচারকারীকে গ্রেফতার করেছে বিএসএফ। কুয়াশাচ্ছন্ন পরিবেশ বা রাতের অন্ধকারে থার্মাল ইমেজারের মাধ্যমে অনায়াসে দুষ্কৃতীদের চিহ্নিত করা যাবে।                                                                                                                                                                                                                                                                                                  নিচে লিখবে ছবি সৌজন্যে ইন্টারনেট

Share With:


Leave a Comment

  

Other related news