Breaking News

"শিলিগুড়ি সংলগ্ন এলাকায় নয়া দমকল কেন্দ্রের প্রস্তাব"

Image
 

নিউজ ডেস্ক,১৫ ফেব্রুয়ারিঃ
শিলিগুড়ি শহর থেকে জলপাইগুড়ির দূরত্ব প্রায়
৫০ কিলােমিটার। আর ইসলামপুর প্রায় ৭০
কিলােমিটার দূরে। শিলিগুড়ি থেকে এই দু'টি
জায়গার মাঝামাঝি এলাকায় কোনও অগ্নিকাণ্ডের
ঘটনা ঘটলে কোনও একটি দিকের দমকল কেন্দ্র
থেকে ইঞ্জিন পাঠাতে বেশ খানিকটা সময় লেগে
যাচ্ছে। দূরত্বের কারণে দ্রুত বিপর্যয় মােকাবিলার
কাজ শুরু করা যাচ্ছে না বলে দাবি দমকল।
কর্তাদের একাংশ। এই কারণেই শিলিগুড়ি ও
ইসলামপুরের মাঝে বিধাননগর এবং জলপাইগুড়ি
ও শিলিগুড়ির মাঝে রাজগঞ্জে দু'টি দমকল কেন্দ্র
স্থাপনের প্রস্তাব পাঠিয়েছে শিলিগুড়ি ডিভিশন।
গত মাসেই ওই চিঠি পাঠানাে হয়েছে রাজ্য
দফতরে। তবে রাজ্য দফতর থেকে এখনও কোনও
ইঙ্গিত মেলেনি।
গত কয়েক বছর ধরে একাধিক অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা
ঘটেছে ওই এলাকাগুলােয়। যানজট বা রাস্তার সমস্যায় ঘটনাস্থলে পৌঁছতে
দেরি হচ্ছে বলে জানাচ্ছেন দমকল কর্তারা।
শিলিগুড়ি দমকল ডিভিশনের এক কর্তা বলেন,
"রাজগঞ্জে তেলের ট্যাঙ্কারে আগুন লেগেছিল।
সেদিকে রওনা দিয়ে বিপদে পড়েছিলাম আমরা।
রাস্তায় এতটাই যানজট ছিল যে সময়ে পৌঁছনাে
যায়নি। ঘােষপুকুর বা বিধাননগরের ক্ষেত্রেও
একইরকমের সমস্যা হচ্ছে।'' দমকল কর্মীদের
দাবি, গত কয়েক বছরে শিলিগুড়ি এবং লাগােয়া
এলাকায় লােকসংখ্যা যেমন বেড়েছে, তার সঙ্গে
তাল মিলিয়ে বেড়েছে দুর্ঘটনা ও আগুন লাগার
ঘটনাও। কিন্তু শিলিগুড়ি, মাটিগাড়া, জলপাইগুড়ি
ও ইসলামপুর এই চারটি ছাড়া মাঝখানে কোথাও
দমকলকেন্দ্র নেই। ফলে মাঝামাঝি এলাকায়
কোনও ঘটনা ঘটলে ২৫-৩৫ কিলােমিটার পথ
পাড়ি দিতে হচ্ছে। দমকলের কর্মীদের দাবি,
এমনিতেই সময় পৌঁছলেও ক্ষতিগ্রস্থ মানুষ
দমকলের দেরিতে আসার অভিযােগ তােলেন।
সেখানে এত দূরের পথ পেরিয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছতে
এমনিতেই দেরি হচ্ছে, তাই জনরােষের মুখে পড়তে
হচ্ছে বলে অভিযােগ দমকলকর্মীদের। সবদিক
বিবেচনা করেই রাজ্য দফতরকে দ্রুত ওই দু'টি
এলাকায় নতুন কেন্দ্র স্থাপনের আবেদন জানানাে
হয়েছে।

Share With:


Leave a Comment

  

Other related news