news-details
Siliguri

"ঘর শত্রু বিভীষণ" প্রমান হলো আবার,  ভাইয়ের ঘর থেকে ১৪ লক্ষ টাকা চুরির অভিযোগে গ্রেপ্তার দাদা

শিলিগুড়ি ওয়েব ডেস্ক,৩রা ফেব্রুয়ারি: বিবাহের অনুষ্ঠানে যোগ দিতে শিলিগুড়িতে আসে পার্থ দাস ও তার স্ত্রী সন্তান। শিলিগুড়ি প্রধান নগর থানা নিবাসী অমিতাভ দাস বাবাকে দেখা শুনা করতে কলকাতা যান। পার্থ বাবুরই কাছে থাকতেন অমিতাভ বাবুর বাবা। তাঁর বাবা দীর্ঘদিন অসুস্থ থাকায় ও তাঁর দাদা বৌদির অবর্তমানে বাবার দেখাশোনা কে করবেন? তা ভেবেই অমিতাভ বাবু চলে যান কলকাতায়। 

অমিতাভ  বাবুর দাদা পার্থ দাস কিছুদিন আগেই চলে আসেন শিলিগুড়িতে।  তার স্ত্রী রিঙ্কু দাস এবং সন্তানকে নিয়ে। অমিতাভ বাবু পেশায় মুরগির ব্যবসায়ী এবং বাড়ি শিলিগুড়ির টি অকশন রোডে। অমিতাভ বাবুর স্ত্রী তনুশ্রী দাস এবং অমিতাভ বাবু অভিযোগ করেছেন তাঁদের অবর্তমানে বাড়িতে থাকা প্রায় ১৪ লক্ষ টাকা চুরি করেছেন তার দাদা ও বৌদি পার্থ দাস এবং রিঙ্কু দাস। 

গোটা ঘটনাটি নিয়ে প্রধান নগর থানায় অভিযোগ দায়ের করেন তনুশ্রী দাস এবং অমিতাভ দাস।তাঁদের অভিযোগ বাড়ির আলমারি তে থাকা অর্থ চুরি করেছেন তাঁদের দাদাই,অভিযোগ পাবার পর তদন্তে নামে শিলিগুড়ি মেট্রোপলিটন পুলিশের প্রধান নগর থানার সাদা পোশাকের পুলিশ বাহিনী। তদন্তে নেমে অমিতাভ  বাবুর বাড়িতে অভিযান চালায় প্রধান নগর থানার পুলিশ বাহিনী জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করে অমিতাভ বাবুর দাদা পার্থ দাস এবং বৌদি রিঙ্কু দাস কে। 

অবশেষে বাড়িতে তল্লাশি চালিয়ে বিভিন্ন জায়গা থেকে উদ্ধার হয় খোয়া যাওয়া ১৪ লক্ষ টাকা। ১৪ লক্ষ টাকা চুরি করার অভিযোগে প্রধান নগর থানার পুলিশ গ্রেফতার করল পার্থ দাস এবং রিঙ্কু দাস কে। গোটা ঘটনায় স্তম্ভিত অমিতাভ বাবু এবং তনুশ্রী দেবী। অভিযুক্তদের আজ শিলিগুড়ি আদালতে তোলা হয়। প্রধান নগর থানার পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, অভিযুক্তরা ১৪ লক্ষ টাকা চুরি করে বাড়ির বিভিন্ন স্থানে লুকিয়ে রেখেছিলেন এবং ছক কষে ছিলেন যাবার সময় সেই অর্থ নিয়ে কেটে পড়বেন, কিন্তু শেষ রক্ষা হল না। এমনকি, শুক্রবার অমিতাভ বাবু কলকাতায় থাকাকালীন তাঁর দাদা ও বৌদিকে ফোন করে জানায় বাড়িতে চুরি হয়েছে এবং সব অর্থ ও সম্পদ খোয়া গিয়েছে। বিষয়টি জানার পর উদ্বিগ্ন  হয়ে পড়েন অমিতাভ বাবু,চুরি হওয়ার গল্পের পর বাড়ি দেখে সন্দেহ হয় অমিতাভ বাবুর স্ত্রী তনুশ্রী দেবীর। এরপর দাদার প্রতি সন্দেহ জাগে তাদের। বিষয়টি নিয়ে প্রধান নগর থানার দ্বারস্থ হয়ে অবশেষে রহস্যের খোলসা হলো।

You can share this post!

Comments System WIDGET PACK

Download Our Android App from Play Store and Get Updated News Instantly.