Breaking News

ফরেস্ট গাইডের ক্যামেরায় ধরা দিলো জোড়া ব্ল্যাকপ্যান্থার অথবা 'মেলানেস্টিক লেপার্ড

Image
 

নিজস্ব সংবাদদাতা,১৭ জানুয়ারি:ফরেস্ট গাইডের ক্যামেরায় ধরা দিলো জোড়া ব্ল্যাকপ্যান্থার অথবা 'মেলানেস্টিক লেপার্ড'।আদতে ওই বন্যপ্রাণিরা চিতাবাঘই।তবে জিন ঘটিত কারনে ওই চিতাবাঘদের গায়ে হলদে ছোপ ফুটে ওঠে না।নিজেদের ওই ভয়াল চেহারার কারনেই সাধারণত দিনের আলোতে কালো চিতাবাঘের  দেখা মেলা প্রায় বিরলতম ঘটনা।গত মঙ্গলবার বক্সা ব্যাঘ্র প্রকল্পের জয়ন্তী থেকে প্রায় পাঁচ কিলোমিটার দূরের জোড়া পাহাড়ের কাছে এক জোড়া ব্ল্যাকপ্যান্থারের ছবি তোলেন স্থানীয় এক ফরেস্ট গাইড।

বনদপ্তরের দাবি, ওই ছবি তথ্য থেকেই পরিষ্কার হয় যে, বক্সা পাহাড়ের জনমানবহীন দুর্গম এলাকায় ওই কালো চিতাবাঘদের ঘন বসতি রয়েছে।ইতিপূর্বে বেশ কয়েকবার বনদপ্তরের পাতা ক্যামেরাট্র্যাপে ব্ল্যাকপ্যান্থারের অস্পষ্ট ছবি ধরা পড়েছে ।সারা শরীর মিশমিশে কালো।জ্বলজ্বল করে ওঠে গাঢ় হলদে-সোনালী চোখ।দেখতে এতটাই ভয়ানক যে স্বাভাবিক চিতাবাঘদের চেয়ে 'মেলানেস্টিক লেপার্ড'দের অনেক বেশি হিংস্র মনে হয়।বনদপ্তরের নথি অনুসারে উত্তরবঙ্গের পাঁচটি সংরক্ষিত জঙ্গল মহানন্দা অভয়ারণ্য, নেওড়াভ্যালি,গরুমারা ও জলদাপাড়া জাতীয় উদ্যান এবং বক্সা ব্যাঘ্র প্রকল্পের জঙ্গলে ব্ল্যাকপ্যান্থারদের অস্তিত্ব রয়েছে।কদাচিত বনদপ্তরের ক্যামেরাট্র্যাপে তাদের ছবিও ধরা পড়েছে।তবে এই প্রথমবার কোনো মানুষ একেবারে দিনের আলোতে এক জোড়া ব্ল্যাকপ্যান্থারকে ক্যামেরাবন্দি করতে পেরেছেন।ঘটনায় উচ্ছ্বসিত বনদপ্তর।

Share With:


Leave a Comment

  

Other related news