Top Stories
  1. লুচি আলুর দমের পর ' ভারত মাতার জয়' , সব্যসাচীকে ঘিরে সন্দেহ দানা বাঁধছে তৃণমূলের অন্দরেই
  2. বিজেপির ২৭টি আসনে প্রার্থী ঘোষণা হতে পারে আজ।
  3. তিন সহকর্মীকে গুলিতে ঝাঁঝরা করে, আত্মহত্যার চেষ্টা জওয়ানের 
  4. লোকসভা নির্বাচনের প্রার্থী বাছতে বিজেপি দফতরে মধ্য রাত পেরিয়ে গেল মোদী- শাহের
  5. আদিবাসী বলয়ে অর্জুনেই কি ভরশা রাখছেন বিজেপি নেতৃত্ব?
  6. পাঁচ হাজারে লিড দিলেই এক কোটির কাজ?উঠছে প্রশ্ন
  7. উত্তর-পুর্বে জোর ধাক্কা খেল  বিজেপি, দল ছাড়লেন ২ মন্ত্রী, ৬ বিধায়ক 
  8. সাতসকালে মোবাইল হাত সাফাই করতে গিয়ে  উত্তম মধ্যম পেল পকেটমার
  9. ভোটের মুখে পুলিশের জালে আন্তঃরাজ্য অস্ত্র কারবারি 
  10. বিধ্বংসী আগুনে পুড়ে গেল গরু ছাগল সহ বাসগৃহ
news-details
Nation

অপরাধ কাশ্মিরী ! যোগীর রাজত্বে  ফল বিক্রেতাকে   রক্তাক্ত  করল একদল বর্বর  হিন্দু,  নিন্দায় সরব দেশবাসী।

 

 

নিজস্ব সংবাদদাতা,০৭ই মার্চ : যোগীর রাজত্বে এক কাশ্মীরি   ফল বিক্রেতাকে   লাঠি পেটা করে রক্তাক্ত  করল একদল উগ্র হিন্দু,  নিন্দায় সরব হয়েছেন  দেশবাসী।

সুত্রের খবর, লাঠি দিয়ে মাথায় মেরে রক্তাক্ত করা হয়েছে এক কাশ্মীর  ফল বিক্রেতা এবং  একই সাথে চলে অশ্রাব্য গালিগালাজ। নিজেদেরকে 'হিন্দু' বলে জাহির করা চার বীর পুরুবের ভিডিও সামনে আসার পরে আবারও পরিষ্কার হয়ে গেল যোগী রাজত্বের আসল চেহারা ।  কাশ্মিরীদের উপর দেশের নানা প্রান্তে হিংসার ঘটনা আরও বেশি চোখে পড়ছে পুলওয়ামা হামলারর পর থেকেই। কখনও চিকিৎসক, কখনও দেহরাদূনের পড়ুয়া, কখনও বা নিরীহ শাল বিক্রেতা আক্রান্ত হয়েছেন শুধুমাত্র জন্মসূত্রে কাশ্মীরের বাসিন্দা বলে। একই ঘটনার পুনরাবৃত্তি হল যোগী রাজ্য লখনউয়েও।

 

উত্তরপ্রদেশের রাজধানী লখনউয়ের ডালিগঞ্জে দুই ফল বিক্রেতাকে প্রকাশ্য রাস্তায় মারধরের অভিযোগ উঠল। অভিযোগ, বুধবার বিকেল পাঁচটা নাগাদ দক্ষিণপন্থী সংগঠনের জনা কয়েক সদস্য আচমকাই চড়াও হয় ওই দুই ফল বিক্রেতার উপর। তাঁদের মারধর করতে শুরু করে।

ফেসবুকে শেয়ার করা ভিডিয়ওতে অভিযুক্তকে বলতেও শোনা গিয়েছে যে, শুধুমাত্র কাশ্মীরি হওয়ার জন্যই মার খেতে হচ্ছে তাঁদের। লাঠি দিয়ে বারবার মারায় রক্তাক্ত হন ওই দুই ব্যক্তি। তাঁদের উদ্ধারে এগিয়ে আসেন স্থানীয় বাসিন্দারাই। তাঁরাই উদ্ধার করেন ওই দুই ব্যক্তিকে।

    বুধবার সন্ধ্যার পর এই ভিডিও ভাইরাল হওয়ার পরেই শুরু হয়ে যায় শোরগোল। তীব্র চাপ আসে রাজ্য প্রশাসনের ওপর । ঘটনার তীব্র নিন্দা করেন ওমর আবদুল্লাহ । পরে এক অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ । যদিও মূল অভিযুক্ত এখনও অধরাই ।

You can share this post!

Comments System WIDGET PACK

Download Our Android App from Play Store and Get Updated News Instantly.